মৃত ব্যক্তির গোসলের নিয়ম

মৃত ব্যক্তির গোসলের নিয়ম

বিসমিল্লাহির রহমানির রহিম. আজকের আলোচনার বিষয় হচ্ছে মৃত ব্যক্তির গোসলের নিয়ম

মৃত ব্যক্তির গোসলের নিয়ম:

প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র

  1. পানি
  2. সাবান
  3. কাপড়
  4. তুলো
  5. কাফন
  6. সুগন্ধি

গোসলের স্থান:

  1. মৃত ব্যক্তিকে গোসল দেওয়ার জন্য একটি নির্জন স্থান নির্বাচন করতে হবে।
  2. স্থানটি পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন এবং পানির ব্যবস্থা থাকতে হবে।
  3. পুরুষদের জন্য পুরুষ এবং মহিলাদের জন্য মহিলা গোসলদানকারী থাকতে হবে।
google News

গোসলের পদ্ধতি:

  1. মৃত ব্যক্তিকে পবিত্র কাপড়ে ঢেকে রাখতে হবে।
  2. গোসলদানকারী দু’হাত ধুয়ে বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম পড়ে গোসল শুরু করবে।
  3. প্রথমে মৃত ব্যক্তির পেশাব-পায়খানা পরিষ্কার করতে হবে।
  4. তারপর ডান হাত থেকে শুরু করে বাম হাত পর্যন্ত পানি ঢেলে ধুয়ে ফেলতে হবে।
  5. তারপর মাথা ও চুল ধুয়ে ফেলতে হবে।
  6. এরপর ডান পা থেকে শুরু করে বাম পা পর্যন্ত পানি ঢেলে ধুয়ে ফেলতে হবে।
  7. সাবান ব্যবহার করে পুরো শরীর ধুয়ে ফেলতে হবে।
  8. শেষে পানি দিয়ে ভালোভাবে ধুয়ে ফেলতে হবে।
  9. মৃত ব্যক্তির শরীরে সুগন্ধি মাখানো যেতে পারে।

কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয়:

  1. মৃত ব্যক্তির শরীরের কোন অংশ উন্মুক্ত রাখা যাবে না।
  2. মৃত ব্যক্তির শরীরে আঘাত করা যাবে না।
  3. মৃত ব্যক্তির মুখ ও নাকে পানি দেওয়া যাবে না।
  4. মৃত ব্যক্তির চোখ বন্ধ করে রাখতে হবে।
  5. গোসলের পর মৃত ব্যক্তিকে কাফন পরানো হবে।

গোসলের ফজিলত:

  1. মৃত ব্যক্তির গোসল দেওয়া একটি ফরজে কেফায়া।
  2. যে ব্যক্তি মৃত ব্যক্তিকে গোসল দেয়, সে আল্লাহর রহমত লাভ করে।
  3. মৃত ব্যক্তির গোসল দেওয়ার মাধ্যমে গুনাহ মাফ হয়।

উল্লেখ্য যে, উপরে উল্লেখিত নিয়মাবলী সাধারণ ধারণা প্রদানের জন্য। মৃত ব্যক্তিকে গোসল দেওয়ার ক্ষেত্রে স্থানীয় রীতিনীতি ও আলেম-উলামাদের পরামর্শ অনুসরণ করা উচিত।

মৃত বাচ্চার গোসলের নিয়ম

প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র

  1. পানি
  2. নরম কাপড়
  3. তুলো
  4. সুগন্ধি
  5. কাফন

গোসলের স্থান:

  1. মৃত বাচ্চাকে গোসল দেওয়ার জন্য একটি নির্জন স্থান নির্বাচন করতে হবে।
  2. স্থানটি পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন এবং পানির ব্যবস্থা থাকতে হবে।

গোসলের পদ্ধতি:

  1. মৃত বাচ্চাকে পবিত্র কাপড়ে ঢেকে রাখতে হবে।
  2. গোসলদানকারী দু’হাত ধুয়ে বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম পড়ে গোসল শুরু করবে।
  3. প্রথমে মৃত বাচ্চার পেশাব-পায়খানা পরিষ্কার করতে হবে।
  4. তারপর ডান হাত থেকে শুরু করে বাম হাত পর্যন্ত পানি ঢেলে ধুয়ে ফেলতে হবে।
  5. তারপর মাথা ও চুল ধুয়ে ফেলতে হবে।
  6. এরপর ডান পা থেকে শুরু করে বাম পা পর্যন্ত পানি ঢেলে ধুয়ে ফেলতে হবে।
  7. শেষে পানি দিয়ে ভালোভাবে ধুয়ে ফেলতে হবে।
  8. মৃত বাচ্চার শরীরে সুগন্ধি মাখানো যেতে পারে।

কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয়:

  1. মৃত বাচ্চার শরীরের কোন অংশ উন্মুক্ত রাখা যাবে না।
  2. মৃত বাচ্চার শরীরে আঘাত করা যাবে না।
  3. মৃত বাচ্চার মুখ ও নাকে পানি দেওয়া যাবে না।
  4. মৃত বাচ্চার চোখ বন্ধ করে রাখতে হবে।
  5. গোসলের পর মৃত বাচ্চাকে কাফন পরানো হবে।

গোসলের ফজিলত:

  1. মৃত বাচ্চাকে গোসল দেওয়া একটি ফরজে কেফায়া।
  2. যে ব্যক্তি মৃত বাচ্চাকে গোসল দেয়, সে আল্লাহর রহমত লাভ করে।
  3. মৃত বাচ্চাকে গোসল দেওয়ার মাধ্যমে গুনাহ মাফ হয়।

উল্লেখ্য যে, উপরে উল্লেখিত নিয়মাবলী সাধারণ ধারণা প্রদানের জন্য। মৃত বাচ্চাকে গোসল দেওয়ার ক্ষেত্রে স্থানীয় রীতিনীতি ও আলেম-উলামাদের পরামর্শ অনুসরণ করা উচিত।

মনে রাখবেন:

  1. মৃত বাচ্চার গোসলের সময় অত্যন্ত সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে।
  2. বাচ্চার শরীর নরম থাকে, তাই কোনভাবেই তার শরীরে চাপ দেওয়া যাবে না।
  3. গোসলের সময় বাচ্চার মুখ ও নাকে পানি ঢোকার বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে।
  4. গোসলের পর বাচ্চাকে কাফন পরিয়ে দাফন করার প্রস্তুতি নিতে হবে।

আল্লাহ তায়ালা আপনার মৃত বাচ্চাকে জান্নাতে বাস করান।

মৃত ব্যক্তির গোসলের দোয়া

মৃত ব্যক্তির গোসলের দোয়া

মৃত ব্যক্তিকে গোসল দেওয়ার সময় নিম্নলিখিত দোয়াগুলো পড়া উচিত:

গোসল শুরু করার আগে

  • اللَّهُمَّ اغْفِرْ لِفُلَانٍ (মৃতের নাম) وَارْحَمْهُ وَعَافِهِ وَاعْفُ عَنْهُ وَأَكْرِمْ نُزُلَهُ وَوَسِّعْ مَدْخَلَهُ وَاغْسِلْهُ بِالْمَاءِ وَالثَّلْجِ وَالْبَرَدِ وَنَقِّهِ مِنَ الْخَطَايَا كَمَا نَقَّيْتَ الثَّوْبَ الْأَبْيَضَ مِنَ الدَّنَسِ

উচ্চারণ

  • আল্লাহুম্মাগফির লি ফুলান (মৃতের নাম) ওয়ারহামহু ওয়া’আফিহি ওয়া’আফু ‘আনহু ওয়া’আকরিম নুজুলাহু ওয়াওয়াস্সি’ মাখদালাহু ওয়াগসিলহু বিলমা’ই ওয়াসসালজি ওয়ালবারদি ওয়ানাক্কিহি মিনাল খাতায়া কামা নাক্কায়াতাস স্সাওবাল আবয়াজা মিনাদ দানাসি।

অর্থ

  • হে আল্লাহ! ফুলান (মৃতের নাম) কে ক্ষমা করুন, তার প্রতি দয়া করুন, তাকে ক্ষমা করুন, তার সম্মান করুন, তার প্রবেশদ্বার প্রশস্ত করুন, তাকে পানি, বরফ এবং শিলা দিয়ে ধুয়ে ফেলুন এবং তাকে পাপ থেকে পরিষ্কার করুন যেমন আপনি সাদা কাপড়কে নোংরা থেকে পরিষ্কার করেন।

গোসল শেষ করার পর

  • اللَّهُمَّ اغْسِلْ فُلَانًا (মৃতের নাম) مِنَ الْخَطَايَا كَمَا غَسَلْتَهُ بِالْمَاءِ وَالثَّلْجِ وَالْبَرَدِ وَنَقِّهِ مِنَ الذُّنُوبِ كَمَا نَقَّيْتَ الثَّوْبَ الْأَبْيَضَ مِنَ الدَّنَسِ وَأَدْخِلْهُ الْجَنَّةَ وَنَجِّهِ مِنْ عَذَابِ النَّارِ

উচ্চারণ

  • আল্লাহুম্মাগসিল ফুলান (মৃতের নাম) মিনাল খাতায়া কামা গাসালতাহু বিলমা’ই ওয়াসসালজি ওয়ালবারদি ওয়ানাক্কিহি মিনায যুনুবি কামা নাক্কায়াতাস স্সাওবাল আবয়াজা মিনাদ দানাসি ওয়া’আদখিলহুল জান্নাতা ওয়ানাজ্জিহি মিন ‘আযাবিন নার।

অর্থ

  • হে আল্লাহ! ফুলান (মৃতের নাম) কে পাপ থেকে ধুয়ে ফেলুন যেমনি আপনি তাকে পানি, বরফ এবং শিলা দিয়ে ধুয়েছেন এবং তাকে পাপ থেকে পরিষ্কার করুন যেমন আপনি সাদা কাপড়কে নোংরা থেকে পরিষ্কার করেন এবং তাকে জান্নাতে প্রবেশ করান এবং তাকে জাহান্নামের আগুন থেকে রক্ষা করুন।

**গোসলের সময় মৃত ব্যক্তির লজ্জাস্থান ঢেকে রাখা উচিত এবং তার শরীরে আঘাত না দেওয়ার জন্য সতর্ক থাকা উচত

শেয়ার করুন
Facebook
WhatsApp
Twitter
Email
LinkedIn
আমার সম্পর্কে
Picture of Hello Moon

Hello Moon

আস-সালামু আলাইকুম, আমি মুন। ইসলামিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আপনার পাশে থাকার তীব্র ইচ্ছা আমার। আপনিও Hellomoon.me কে নিয়মিত ভিজিট করে আমাকে পাশে রাখুন। 

ধন্যবাদ
error: Content is protected !!