ইন্না আতাইনা কাল কাওসার

ইন্না আতাইনা কাল কাওসার

বিসমিল্লাহির রহমানির রহিম. আজকের আলোচনার বিষয় হচ্ছে ইন্না আতাইনা কাল কাওসার

সূরা কাউসার

সূরা কাউসার পরিচয়

  • সূরার নাম: সূরা আল-কাউসার
  • সূরার আয়াত সংখ্যা: ৩
  • সূরার অবতীর্ণ স্থান: মক্কা
  • সূরার রুকু সংখ্যা: ১
Hello Moon google News

সূরা কাউসার ফযিলত

  1. হাদিসে বর্ণিত আছে, নবী (সাঃ) বলেছেন, “যে ব্যক্তি সূরা কাউসার পাঠ করবে, তার জন্য জান্নাতে একটি নদী থাকবে।” ([আহমাদ: ৬/২৮৪, তিরমিযী: ২৯০৮, ইবনে মাজাহ: ৩৮০৮])
  2. অন্য হাদিসে এসেছে, “সূরা কাউসার কুরআনের সর্বশ্রেষ্ঠ সূরা।” ([তিরমিযী: ২৯০৭])

সূরা কাউসার বিষয়বস্তু

  1. আল্লাহর কাছ থেকে নবী মুহাম্মদ (সাঃ)-এর প্রতি বিশেষ অনুগ্রহ ও বর প্রদানের বর্ণনা
  2. কাউসার নামক জান্নাতের একটি নদীর বর্ণনা
  3. নবী মুহাম্মদ (সাঃ)-এর প্রতি আল্লাহর রহমত ও বরকতের প্রতিশ্রুতি

সূরা কাওসার অডিও

সূরা কাউসার

আরবিবাংলা উচ্চারণঅর্থ
إِنَّآ أَعْطَيْنَٰكَ ٱلْكَوْثَرَইন্না আ’তাইনা-কাল কাওছার।নিশ্চয় আমি আপনাকে কাওসার দান করেছি।
فَصَلِّ لِرَبِّكَ وَٱنْحَرْফাসালিল লিরাব্বিকা ওয়ানহার। অতএব আপনার পালনকর্তার উদ্দেশ্যে নামায পড়ুন এবং কোরবানী করুন।
إِنَّ شَانِئَكَ هُوَ ٱلْأَبْتَرُইন্না শা-নিআকা হুওয়াল আবতার।যে আপনার শত্রু, সেই তো লেজকাটা, নির্বংশ।

সূরা কাউসার তেলাওয়াতের নিয়ম

  1. সূরা কাউসার প্রতিদিন ৫ বার নামাজের পর তেলাওয়াত করা উত্তম।
  2. তবে, দিনের যেকোনো সময় তেলাওয়াত করা যাবে।
  3. তেলাওয়াতের সময় নিয়ম কানুন মেনে চলা উচিত।

কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য

  1. সূরা কাউসার কুরআনের সবচেয়ে ছোট সূরা।
  2. এই সূরাতে মাত্র ৩টি আয়াত এবং ১০টি শব্দ রয়েছে।
  3. সূরা কাউসার নবী মুহাম্মদ (সাঃ)-এর প্রতি আল্লাহর বিশেষ অনুগ্রহ ও বর প্রদানের সুসংবাদ বহন করে।
  4. নিয়মিত সূরা কাউসার তেলাওয়াতের ফলে অনেক ফযিলত ও বরকত লাভ করা যায়।

ইন্না আতাইনা কাল কাওসার,ইন্না আতাইনা কাল কাওসার

শেয়ার করুন
Facebook
WhatsApp
Twitter
Email
LinkedIn
আমার সম্পর্কে
Picture of Hello Moon

Hello Moon

আস-সালামু আলাইকুম, আমি মুন। ইসলামিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আপনার পাশে থাকার তীব্র ইচ্ছা আমার। আপনিও Hellomoon.me কে নিয়মিত ভিজিট করে আমাকে পাশে রাখুন। 

ধন্যবাদ
error: Content is protected !!