আল্লাহুম্মা বারিক লাহু অর্থ

আল্লাহুম্মা বারিক লাহু অর্থ

বিসমিল্লাহির রহমানির রহিম. আজকের আলোচনার বিষয় হচ্ছে আল্লাহুম্মা বারিক লাহু অর্থ

আল্লাহুম্মা বারিক লাহু অর্থ

আল্লাহুম্মা বারিক লাহু এর অর্থ হল “হে আল্লাহ, তাকে বরকত দিন।” এটি একটি আরবি দোয়া যা সাধারণত একজন মুসলিম ব্যক্তি তার অন্য মুসলিম ভাইয়ের জন্য বলে থাকে। এটি বলা যেতে পারে যেকোনো ব্যক্তির জন্য, যেকোনো সময়, যেকোনো পরিস্থিতিতে।

এই দোয়ার মধ্যে

আল্লাহুম্মা“হে আল্লাহ”
বারিক “বরকত দান করুন”
লাহু“তাকে”

এই দোয়াটি বলার মাধ্যমে একজন মুসলিম ব্যক্তি তার ভাইয়ের জন্য আল্লাহর কাছে বরকত কামনা করে। তিনি আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করে যেন তিনি তার ভাইয়ের জীবনে সমস্ত কিছুতে বরকত দান করেন। এটি হতে পারে তার সম্পদ, সন্তান, স্বাস্থ্য, শিক্ষা, ক্যারিয়ার, ইত্যাদি।

আল্লাহুম্মা বারিক লাহু বলা একটি গুরুত্বপূর্ণ সুন্নত আমল। রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন, “যখন তুমি তোমার ভাইয়ের কোনো ভালো কিছু দেখ, তখন বল, ‘আল্লাহুম্মা বারিক লাহু’।” (বুখারি)

এই দোয়াটি বলার মাধ্যমে একজন মুসলিম ব্যক্তি তার ভাইয়ের প্রতি তার ভালোবাসা ও আন্তরিকতা প্রকাশ করে। তিনি আল্লাহর কাছে তার ভাইয়ের জন্য কল্যাণ কামনা করে।

google News

আল্লাহুম্মা বারিক লাহা আরবি

আল্লাহুম্মা বারিক লাহা এর আরবি হল:

আরবিاللَّهُمَّ بَارِكْ لَهَا
উচ্চারণআল্লাহুম্মা বারিক লাহা
আর্থহে আল্লাহ, তাকে বরকত দিন।

আল্লাহুম্মা বারিক লাহু এর আরেকটি রূপ হল আল্লাহুম্মা বারিক লাহুম। এই রূপটি একজন পুরুষ বা মহিলা উভয়ের জন্য ব্যবহার করা যেতে পারে।

আল্লাহুম্মা বারিক লাহা বলার ফজিলত:**

রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন, “যখন তুমি তোমার ভাইয়ের কোনো ভালো কিছু দেখ, তখন বল, ‘আল্লাহুম্মা বারিক লাহু’।” (বুখারি)

এই দোয়াটি বলার মাধ্যমে একজন মুসলিম ব্যক্তি তার ভাইয়ের জন্য আল্লাহর কাছে বরকত কামনা করে। তিনি আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করে যেন তিনি তার ভাইয়ের জীবনে সমস্ত কিছুতে বরকত দান করেন। এটি হতে পারে তার সম্পদ, সন্তান, স্বাস্থ্য, শিক্ষা, ক্যারিয়ার, ইত্যাদি।

আল্লাহুম্মা বারিক লাহা বলা একটি গুরুত্বপূর্ণ সুন্নত আমল।

আল্লাহুম্মা বারিক লাহা কখন বলে

আল্লাহুম্মা বারিক লাহা বলার কিছু নির্দিষ্ট সময় রয়েছে, যেমন:

  1. যখন একজন মুসলিম ব্যক্তি তার অন্য মুসলিম ভাইয়ের কোনো ভালো কিছু দেখে। যেমন, তার নতুন সন্তানের জন্ম, নতুন ব্যবসায়ের সফলতা, বা নতুন চাকরির প্রাপ্তি।
  2. যখন একজন মুসলিম ব্যক্তি তার নিজের বা তার পরিবারের কোনো সদস্যের জন্য বরকত কামনা করে। যেমন, তাদের স্বাস্থ্য, সম্পদ, সন্তান, শিক্ষা, বা ক্যারিয়ারের জন্য।
  3. এছাড়াও, আল্লাহুম্মা বারিক লাহা বলা যেতে পারে যেকোনো সময়, যেকোনো পরিস্থিতিতে, যেখানে একজন মুসলিম ব্যক্তি তার ভাইয়ের জন্য আল্লাহর কাছে বরকত কামনা করতে চায়।
  4. উদাহরণস্বরূপ, একজন মুসলিম ব্যক্তি আল্লাহুম্মা বারিক লাহা বলতে পারে যখন:
  5. সে তার ভাইয়ের জন্য একটি ভালো কাজ করে।

আল্লাহুম্মা বারিক লাহা বলা একটি সহজ কিন্তু গুরুত্বপূর্ণ আমল। এটি বলার মাধ্যমে একজন মুসলিম ব্যক্তি তার ভাইয়ের প্রতি তার ভালোবাসা ও আন্তরিকতা প্রকাশ করে। তিনি আল্লাহর কাছে তার ভাইয়ের জন্য কল্যাণ কামনা করে।

শেয়ার করুন
Facebook
WhatsApp
Twitter
Email
LinkedIn
আমার সম্পর্কে
Picture of Hello Moon

Hello Moon

আস-সালামু আলাইকুম, আমি মুন। ইসলামিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আপনার পাশে থাকার তীব্র ইচ্ছা আমার। আপনিও Hellomoon.me কে নিয়মিত ভিজিট করে আমাকে পাশে রাখুন। 

ধন্যবাদ
error: Content is protected !!