আকিকার দোয়া

আকিকার দোয়া

বিসমিল্লাহির রহমানির রহিম. আজকের আলোচনার বিষয় হচ্ছে আকিকার দোয়া

আকিকার দোয়া,মেয়ে আকিকার দোয়া,আকিকার দোয়া বাংলায়,আকিকার দোয়া ও নিয়ম,আকিকার দোয়া আরবিতে,

Hello Moon google News

আল্লাহ তাআলার দেওয়া শ্রেষ্ঠ একটি নেয়ামত হলো সন্তান । সন্তানের প্রতি পিতা-মাতার অনেক দায়িত্ব ও কর্তব্য । তার মাঝে অন্যতম একটি হলো আকিকা করা । আকিকা সন্তানের কল্যান ও ভালোর জন্য সন্তান জন্মের ৭ম দিন করা উওম তবে ১৪, ২১,অথবা ২৮তম দিনেও করা যায়।

আকিকার দোয়া

আরবিالله حجيي أكيكاتو ابن فولانين دموهابيداميهي ولحموها بلاحميها وعظمها بيازمها وزيلدوها بزلاديهي وشا روحها بشري الله الله ، الله فيدا علي ابن مينار
উচ্চারণআল্লাহুম্মা হাযিহী আকিকাতু ইবনী ফুলানিন দামুহাবিদামিহী ওয়া লাহমুহা বিলাহমিহী ওয়া আজমুহা বিআযমিহী ওয়া জিলদুহা বিজিলাদিহী ওয়া শা রুহা বিশাররিহী আল্লাহুম্মাজআলহা ফিদাআল্লি ইবনী মিনান্নার।

মেয়েদের আকিকার নিয়ম

আকিকা মূলত দেওয়া হয়ে থাকে সন্তানের যেন কোন বালা মুসিবত না হয় এবং আল্লাহর শুকরিয়া আদায়ের জন্য।যদি ছাগল আকিকা দেন তাহলে মেয়ে সন্তানের জন্য একটি ছাগল আকিকা দিলেই হবে।(আবু দাউদ ও নাসায়ি)

ছেলেদের আকিকার নিয়ম

যদি আপনার ছেলে সন্তান জন্মগ্রহণ করে থাকেন তাহলে সেই ছেলে সন্তানের আকিকা দেওয়ার জন্য দুটি ছাগল প্রয়োজন। অর্থাৎ ছেলেদের আকিকার নিয়ম হলো দুটি ছাগল দেওয়া।(আবু দাউদ ও নাসায়ি)

আকিকার জন্য ছাগলের বয়স

ছাগল দিয়ে আকিকার নিয়ম এবং আকিকার নিয়ম ও দোয়া সম্পর্কে ইতিমধ্যে আপনারা জানতে পেরেছেন। কিন্তু আপনাদের আরো একটি বিষয় জানা প্রয়োজন সেটি হল আকিকার জন্য ছাগলের বয়স কত হতে হবে।

আকিকার জন্য ছাগলের বয়স হতে হবে কমপক্ষে এক বছর। এক বছর পার হওয়ার পরে সেই ছাগল দিয়ে আকিকা দেওয়াই উত্তম হবে।

আকিকার গোস্ত খাওয়ার নিয়ম

আকিকা দেওয়ার পরে গোস্তগুলো আত্মীয়-স্বজন গরিব অসহায় ফকির মিসকীনদের মাঝে বন্টন করে দেওয়ার পরে কিছুটা গোস্ত রেখে সেগুলো নিজেরা খেতে পারবেন। এবং যদি সন্তান বড় হয়ে যায় এবং তারপরে আকিকা দেওয়া হয় তাহলে সে নিজের আকিকার গোস্ত নিজেই খেতে পারবে।

শেয়ার করুন
Facebook
WhatsApp
Twitter
Email
LinkedIn
আমার সম্পর্কে
Hello Moon

Hello Moon

আস-সালামু আলাইকুম, আমি মুন। ইসলামিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আপনার পাশে থাকার তীব্র ইচ্ছা আমার। আপনিও Hellomoon.me কে নিয়মিত ভিজিট করে আমাকে পাশে রাখুন। 

ধন্যবাদ